বাড়িতে খুব সহজে পিজ্জা তৈরি করতে সহায়ক ৭টি গ্যাজেট

‘পিজ্জা’ পৃথিবীর অন্যতম জনপ্রিয় একটি খাবার। এটি একটি ইতালিয়ান খাবার, যার উৎপত্তি ইতালির নেপলস শহরে। এখন সারা বিশ্বের খাবারের জগতে খুব পরিচিত একটি নাম পিজ্জা। একটি রুটির উপর পনির, মাংস, বিভিন্ন সবজি, পেঁয়াজ, টমেটো সস ও আরও কিছু সস দিয়ে তৈরি করা হয় এ খাবারটি। পৃথিবী ব্যাপী পিজ্জাপ্রেমী মানুষের অভাব নেই। বাংলাদেশেও ফাস্ট ফুড জগতে জনপ্রিয় একটি নাম হলো পিজ্জা।

মূলত এটি নেপোলিটান রন্ধনপ্রণালীর একটি অংশ। প্রাচীন গ্রিকরা তাদের রুটি ওপরাংশে তেল, লতাগুল্ম ও পনির দিয়ে খেত। এছাড়াও প্রাচীন রোমানরা এটিকে একটু উন্নত করে পাতলা রুটির ওপর পনির, মধু, ও তেজপাতা লাগিয়ে খেত। সেখান থেকেই পিজ্জার ধারণাটি আসে। তবে আমরা যে পিজ্জা খাই অর্থাৎ, আধুনিক পিজ্জার ইতিহাসের সৃষ্টি হয়েছে ইতালিতেই।

পিজ্জা আমারও খুব প্রিয় একটি খাবার। পিজ্জা যেমন রেস্টুরেন্ট থেকে খাওয়া যায়, তেমনি বানিয়ে নেয়া যায় বাড়িতেও। বাড়িতে রেস্টুরেন্টের মতো পিজ্জা বানাতে গেলে দরকার পড়ে কয়েকটি গ্যাজেটের। চলুন, জেনে নেয়া যাক এগুলো সম্পর্কে। জানার পর হয়তো কমে যেতে পারে আপনার পিজ্জা বানানোর পরিশ্রম।

হুইল শব্দের অর্থ চাকা হলেও এই যন্ত্রটি চাকা জাতীয় কিছু না। এটি পিজ্জা কাটার কাজে ব্যবহার করা হয়। পিজ্জা হুইল পিজ্জা কাটার জন্য একটি খুব গুরুত্বপূর্ণ উপাদান। ছুরি দিয়ে পিজ্জা কাটতে গেলে দেখা যায় পনির ছড়িয়ে যায়, রুটিও ঠিকমতো কাটা হয় না। পিজ্জা হুইল দিয়ে সুন্দরভাবে পিজ্জার রুটি কেটে, চিজ সরিয়ে নেয়া যায়। তাই ছুরি বা অন্যকিছু দিয়ে কেটে আপনার বানানো সুস্বাদু পিজ্জাটির চেহারা নষ্ট না করে, কিনে নিতে পারেন একটি পিজ্জা হুইল।

পিজ্জা হুইল; Source: amazon.com

আপনি যদি বাড়িতে পিজ্জা বানাতে চান, তাহলে আপনার দরকার হবে পিজ্জা স্টোনের। প্রশ্ন থাকছে, প্যান অথবা বেকিং শিটের বদলে কেন ব্যবহার করবেন পিজ্জা স্টোন? চলুন, জেনে নেয়া যাক।

এই স্টোনটি চুলা বা ওভেনের তাপ শুষে নিয়ে তারপর ভালোভাবে পিজ্জার রুটিতে পাঠায়। এতে আপনার তৈরি পিজ্জাটি হয়ে ওঠে যেকোনো পিজ্জার দোকানের পিজ্জার মতোই মচমচে ও চর্বনযোগ্য।

পিজ্জা স্টোনে ওভেনে পিজ্জা বানাতে ৫০০ ডিগ্রি পর্যন্ত তাপ দিতে পারবেন। ধাতব পদার্থের তৈরি এ স্টোনটি উচ্চ তাপমাত্রা শুষে নিতে পারে। পিজ্জা তৈরিতে পিজ্জা স্টোন এমাজন অ্যাপে বহুল বিক্রীত একটি যন্ত্র।

পিজ্জা স্টোন; Source: pizzacraft.com

পিজ্জা কাটতে পিজ্জা হুইলের চেয়েও পিজ্জা সিজার্স সুবিধাজনক। এই যন্ত্রটির সবচেয়ে বড় সুবিধা- এর একদিকে কাঁচি আর অপরদিকে রয়েছে একটি স্প্যাচুলা। যে স্প্যাচুলার আকার পিজ্জার স্লাইসের মতোই। এটি ব্যবহার করতে শুধু পিজ্জার নিচে স্প্যাচুলাটি রেখে পিজ্জা কাটতে থাকুন। এভাবে ইতালিতে পিজ্জা কেটে পরিবেশন করা হয়। তাই বিনা দ্বিধায় নিয়ে নিতে পারেন এ যন্ত্রটি।

পিজ্জা সিজার্স; Source: cooknstuff.net

পিজ্জা পিল হলো বেশ বড় একটি স্প্যাচুলা বা চামচ, যা দিয়ে ওভেন থেকে পিজ্জা নামানো যায় পিজ্জার সাইজের বারোটা বাজিয়ে না দিয়েই। পিল দিয়ে পিজ্জা ওভেন থেকে নামানোর আগে এর সর্বোচ্চ ব্যবহার পেতে, এতে অল্প আটা বা ময়দা ছিটিয়ে দিন। এতে পিজ্জা শুধু নামানো নয়, উল্টাতেও সুবিধা হবে। পাতলা ধরনের পিজ্জা ওভেন থেকে নামাতে বা উল্টাতে ব্যবহার করা এই যন্ত্রটি এমাজন অ্যাপে বেস্ট সেলারের তালিকায় রয়েছে।

পিজ্জা বানাতে ছিদ্রবহুল ট্রে অত্যন্ত উপকারী। কারণ এই ট্রেতে পিজ্জা বানাতে গেলে পিজ্জাতে গরম বাতাস সহজেই লাগতে পারে। পিজ্জা বানানোর সময় কমাতে এই ট্রে ব্যবহার করা হয়। এতে বাতাস চলাচলের সুবিধা থাকায় পিজ্জা যেমন তাড়াতাড়ি হয় তেমন মচমচেও হয়। এটি একটি পিজ্জার সাইজের হওয়াতে পিজ্জা এই ট্রেতে বানাতে সুবিধাও হয়।

ছিদ্রবহুল ট্রে; Source: amara.com

পিজ্জা গ্রিল করলে পিজ্জার স্বাদ বেড়ে যায় বহুগুণ। পিজ্জা গ্রিলের কিটে পিজ্জা খুব তাড়াতাড়ি তৈরি হয়ে যায়। আর সাথে গ্রিলের স্মোকি ফ্লেভার তো আছেই। এই যন্ত্রটি ওভেনের চেয়েও পিজ্জা বানানোতে বেশি উপকারী কারণ, এটা ওভেনের চেয়েও বেশি তাপে পিজ্জা তৈরি করতে পারে।

এমনিতে ওভেনে পিজ্জা বানাতে সময় লাগে বেশ খানিকটা। পিজ্জা গ্রিলের সাথে পিজ্জা স্টোন, পিজ্জা পিল ইত্যাদি ব্যবহার করে কেবল কয়েক মিনিটেই সুস্বাদু একটি পিজ্জা বানিয়ে নেয়া যায়। অল্পসময়ে পিজ্জা বানিয়ে স্মোকি ফ্লেভারের সাথে সহজেই খেতে পারবেন এই যন্ত্রটি ব্যবহার করে।

পিজ্জা কিট ফর আউটডোর গ্রিল; Source: walmart.com

আসলে বলতে গেলে পিজ্জা বানাতে আপনার এই পিজ্জা ফ্লোটের তেমন দরকার পরবে না। কিন্তু আপনি যদি পাগল পিজ্জাপ্রেমী হন, তাহলে এই আর্টিকেলটি পড়ে এটিও কিনে নেবেন। আর আগে থেকে যদি আপনার থাকে তাহলে তো কথাই নেই।

জেনে নেয়া হলো পিজ্জা তৈরির বিভিন্ন গ্যাজেট সম্পর্কে। এতে আগের থেকে আপনি অনেক কম পরিশ্রমে পিজ্জা বানিয়ে খেতে পারবেন। আপনার যদি এই গ্যাজেটগুলো না থাকে তবে কিনে নিতে পারেন। এমাজন অ্যাপ, পিকাবু ডটকম ইত্যাদি শপিং স্টোর ছাড়াও খুঁজে নিতে পারেন আপনার আশেপাশের ভালো গ্যাজেটের দোকান থেকে। আর ইচ্ছে করলেই বাড়িতেই পিজ্জা বানিয়ে পরিবারের সবার সাথে খেয়ে ভালো সময় অতিবাহিত করতে পারবেন।

Feature Image: elementstark.com

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here